ইটের বদলে পাথর

কবি দ্বিজেন্দ্ৰলাল রায় একদিন গল্প করছিলেন এক ইংরেজের সঙ্গে। কথায় কথায় সেই ইংরেজ ব্যক্তিটি বললেন, ‘হিন্দু ধর্মটা মিথ্যা, কারণ তাহারা পৌত্তলিক।’

নিজ ধর্ম সম্পর্কে ইংরেজের মুখে এহেন মন্তব্য শুনে দ্বিজেন্দ্রলালের মাথা গরম হয়ে গেল। তিনি পিঠোপিঠি বললেন, ‘সাহেব, খ্ৰীষ্টধর্মটা খুব ভুল!’

ইংরেজ জিগ্যেস করলেন, ‘কেন? ভুল কেন?’

দ্বিজেন্দ্ৰলাল হেসে বললেন, ‘পরমেশ্বর তো একদিনই জগত তৈরী করতে পারতেন। ছয়দিন সময় নিলেন কেন? আর তাছাড়া করলেন তো একদিন আবার কেন বিশ্রাম করলেন? এই পৃথিবী তৈরী করতে কি তাঁর বড় বেশি পরিশ্রম হয়েছিল?’

হিন্দিতে একটা কথা আছে-ইট কী জবাব পত্থর সে! অর্থাৎ ইটের জবাব পাথরে! তো এ হেন জবর জবাব পেয়ে লাল মুখো সাহেবের মুখ আরও লাল হয়ে গেল! সেটা লজ্জায়!

%d bloggers like this: