ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগর : Tag

দুরবস্থা

দুরবস্থা ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগর একদিন নিজের বৈঠকখানায় ব’সে অন্তরঙ্গ বন্ধুবান্ধবের সঙ্গে রঙ্গ রসিকতায় মেতে আছেন। তার মাঝে উঠছে সমাজ সংস্কারমূলক বিভিন্ন প্রসঙ্গ। এমন সময় এক বৃদ্ধ ব্যক্তি ঘরে ঢুকলেন। তাঁর পরণে ময়লা পোশাক। তিনি করজোড়ে বিদ্যাসাগরকে বললেন, ‘বড় দুরাবস্থায় পড়েছি আমি। আমাকে দয়া করে কিছু অর্থ সাহায্য করুন।’ বিদ্যাসাগর দয়ার সাগর। বৃদ্ধকে দেখে স্বভাবতই তাঁর দয়া […]

গৃহিনী রোগ

গৃহিনী রোগ এক বন্ধুর সঙ্গে দেখা হতে ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগর বললেন, ‘কী হে বন্ধু, তোমরা আজকাল প্রচার করে বেড়ােচ্ছ আমার নাকি গৃহিনী রোগ হয়েছে?’ অবাক বন্ধুটি বললেন, ‘ঠিক বুঝলাম না তোমার কথা।’ বিদ্যাসাগর তখন হাসতে হাসতে বললেন, ‘তবে তোমায় বুঝিয়ে বলি। আজ একটি লোক আমার সঙ্গে দেখা করতে এসেছিলেন। তিনি বলেন — আপনার এক অন্তরঙ্গ বন্ধুর […]

বিবাহ বাসর

বিবাহ বাসর নিজের বিবাহ বাসরকে রঙ্গ-রসিকতায় ভরিয়ে তুলেছিলেন বিদ্যাসাগর। কী রকম ? বন্ধুদের কাছে ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগর বলেন, ‘বিয়ের পর বাসরে প্রবেশ করা মাত্র কনে পক্ষের রমণীরা আমাকে বলে–বর, তোমার কনে তুমি নিজেই খুঁজে নাও। মুশকিলে পড়লাম। শেষমেষ ঐ মেয়ে-দঙ্গলের ভেতর থেকে সুন্দরী একজনকে জড়িয়ে ধরে বললাম–তুমিই আমার কনে! তোমাকে নিয়েই আমি সংসার, করব! মেয়েটি পড়ল […]

ব্রাহ্মণ বনাম ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগর

ব্রাহ্মণ বনাম ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগর ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগরের কাছে সবধরনের মানুষ দেখা করতে আসতেন। ব্রাহ্মণেরা যেমন আসতেন, তেমন অব্রাহ্মণরাও আসতেন। একদিন বিদ্যাসাগরের সঙ্গে এক ব্ৰাহ্মাণ দেখা করতে এলেন। সেই ব্ৰাহ্মাণ ছিলেন গোঁড়া। তিনি অন্যান্যদের প্রণাম পাওয়ার রীতিতে অভ্যস্ত ছিলেন। বিদ্যাসাগর নিজে যদিও ব্রাহ্মণ সন্তান, তবু তিনি ছিলেন এই প্রথার বিরোধী। সেই ব্ৰাহ্মণ আশা করেছিলেন, বিদ্যাসাগরের অনুগামীরা তাঁকে প্ৰণাম […]

স্নানপর্ব

স্নানপর্ব রায় বাহাদুর কালিপ্ৰসন্ন ঘোষ ছিলেন ‘বান্ধব’ পত্রিকার সম্পাদক। তিনি একবার এসেছেন বিদ্যাসাগরের বাড়িতে। গৃহস্বামী বিদ্যাসাগর অতিথির আপ্যায়নের ত্রুটি রাখলেন না। বিভিন্ন পদের খাবার রান্না হল কালিপ্ৰসন্নর জন্য। কালিপ্ৰসন্ন স্নান করবেন। এই সময় বিদ্যাসাগর একটু রসিকতা করার সুযোগ হাতছাড়া করলেন না। বাড়ির কাজের লোকটিকে ডেকে বললেন, ‘ওহে শোনো, আজ বাড়িতে যে বাবুটি এসেছেন, তিনি লোক […]